আমরা কে

পিওর পুস্টি এগ্রো ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড অন্যতম একটি দ্রুত ক্রমবর্ধমান এবং বাংলাদেশের কোম্পানিগুলোর মধ্যে অন্যতম একটি শীর্ষস্থানীয় হওয়ার জন্য দৃঢ়ভাবে  প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। এই ব্যবসায়িক শাখাটি সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ একটি সিস্টার কনসার্ন হবে, যখন এই কোম্পানিটি শীঘ্রই বাংলাদেশে একটি ব্যবসায়িক গোষ্ঠী হিসেবে নিজেকে আত্মপ্রকাশ করবে। পিওর পুস্টি এগ্রো ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল ০১ জানুয়ারী, ২০২০ সালে। যদিও পিওর পুস্টি এগ্রো ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড তার যাত্রা শুরু করেছে খুব বেশি আগে নয়, এটি ইতিমধ্যেই বাংলাদেশের ফিড শিল্পে একটি চিত্তাকর্ষক সাড়া ফেলতে সক্ষম হয়েছে। বর্তমানে, মার্কেটপ্লেস, অফিস এবং কারখানায় মোট ৩২০ জনের উপরে কর্মরত আছেন। আমাদের একটি অত্যন্ত সক্ষম সেলস টিম, এইচআর এবং অ্যাডমিন, এমআইএস এবং অডিট, কল সেন্টার, অ্যাকাউন্টস, মান নিয়ন্ত্রণ, প্রকিউরমেন্ট এবং উৎপাদন বিভাগ রয়েছে।

আমরা যা বিশ্বাস করি

পিওর পুস্টি এগ্রো ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড এর মূল শক্তি হল সততা, বিশ্বাস, গুণমান এবং সহযোগিতা। আমরা সবসময় আমাদের গুণগত ব্যবসায়িক আদর্শের মাধ্যমে গ্রাহকের সন্তুষ্টিতে বিশ্বাস করি। এই কোম্পানির প্রাথমিক লক্ষ্য হল গুণগত ফিড উৎপাদনের গতিকে উন্নীত করা এবং কৃষকদের ফিড সরবরাহের ঘাটতি হ্রাস করা। সরকারের পাশাপাশি প্রোটিনের ঘাটতি দূর করার যুদ্ধে অংশগ্রহণ করাও আমাদের অন্যতম একটি উদ্দেশ্য। এই কোম্পানি সর্বদা ভোক্তাদের জন্য সতেজ মাংস উৎপাদনের গুরুত্বের উপর জোর দেয় এবং এই উদ্দেশ্যে, আমরা এর শুরু থেকেই কাজ করে আসছি ।

সভাপতির বক্তব্য

আসসালামুয়ালাইকুম।

আমার দলের প্রিয় সদস্য, গ্রাহক এবং শুভাকাঙ্ক্ষীগণ, আমার আন্তরিক শুভেচ্ছা গ্রহণ করুন। পিওর পুস্টি এগ্রো ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড একটি দূরদর্শী প্ল্যাটফর্ম যা গ্রাহকদের সেরা মানের পণ্য এবং পরিষেবা নিশ্চিত করার জন্য সর্বোচ্চ স্তরে চেষ্টা করে । সেই পরিপ্রেক্ষিতে আমি ও আমার দল অক্লান্তভাবে কঠোর পরিশ্রম করে যাচ্ছি । আমি জানি যে একদিন আমরা আমাদের মিশনের শিখরে পৌঁছাব। আমরা শতভাগ সফল হবো কিনা জানি না , তবে আমি ব্যক্তিগতভাবে বিশ্বাস করি যে আমার স্বপ্রণোদিত তরুণ, উদ্দমী ও স্বপ্নদর্শী টিমের কার্যক্রমের মাধ্যমে গতানুগতিক ব্যবসার প্রতিটি ক্ষেত্রে পরিবর্তন আনতে পারব । যুক্তরাজ্যের প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী উইনস্টন চার্চিল বলেছেন, “সাফল্য চূড়ান্ত নয়, ব্যর্থতাও মারাত্মক নয়: চেস্টা চালিয়ে যাওয়ার সাহস টাই আসল”। পরিবর্তন না আসা পর্যন্ত আমরা আমাদের চলমান প্রচেষ্টা চালিয়ে যাব। তাই, আমি চ্যালেঞ্জারদের পরামর্শ দিতে চাই ” কখনো চিন্তিত হবেন না, শুধু সততার সাথে কাজ করুন, আশাবাদী হোন এবং একটি স্বপ্ন নিয়ে এগিয়ে যান”। এই চলার পথে আমি সকলের সহযোগিতা কামনা করছি।

ধন্যবাদ

আমাদের মিশন

পিওর পুস্টি এগ্রো ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড ফিড সেক্টরে তার ব্যবসা শুরু করেছে, তবে আমাদের দীর্ঘমেয়াদী পরিকল্পনা শুধুমাত্র এই ব্যবসায় আটকে থাকা নয়। আমাদের চরম মিশন হল যত তাড়াতাড়ি সম্ভব আমরা বাংলাদেশের গ্রুপ অফ কোম্পানিগুলির মধ্যে  একটি আদর্শ গ্রুপ হিসাবে নিজেদেরকে অন্বেষণ করা। আমরা এমন একটি ব্যবসায়িক প্রবণতা তৈরি করতে চাই যেখানে রাজস্ব উপার্জনের চেয়ে সুনাম অর্জনে বেশি মনোযোগ দেওয়া হয় যাতে বাংলাদেশের বিপুল সংখ্যক স্নাতক বেকার যুবক আমাদের সাথে যোগ দিতে আকৃষ্ট হয়। বেকারত্বের সমস্যা হ্রাসের চ্যালেঞ্জে অবদান রাখা এবং একই সাথে আরও সুযোগ সম্প্রসারণের মাধ্যমে আমাদের ব্যবসার সাথে মিশে থাকা ব্যবসায়ীদের জীবনযাত্রার মান উন্নত করা অন্যতম একটি মিশন।

আমাদের ভিশন

আমাদের নিকট পরবর্তী পরিকল্পনা খাদ্য এবং পানীয় উৎপাদেন সংশ্লিষ্ট হওয়া । জৈব সার, ট্যুর অ্যান্ড ট্রাভেলস, ট্রেডিং ইনকর্পোরেশন, মুরগীর বাচ্চা, বীজ, ময়দার মিল, কেডি এসোসিয়েটস্ পরবর্তী ধাপ সমূহের পরিকল্পনা। এই ব্যবসায়িক অঙ্গ প্রতিষ্ঠানগুলিতে বেকারদের নিয়োগ করে, আমরা বাংলাদেশ বেকারত্ব সমস্যা দূরীকরণে অংশগ্রহণ করতে চাই। আমাদের চূড়ান্ত লক্ষ্য হল সুদূরপ্রসারী ব্যবসায়িক নীতির মাধ্যমে প্রিমিয়াম শ্রেণীর গুণমান এবং পরিষেবা প্রদানকারী হিসাবে শীর্ষে পৌঁছানো। ২০২৫ সালের মধ্যে আমরা স্থানীয় ব্যবসায়িক সংগঠনগুলির মধ্যে ২৫ থেকে ৩০ তম স্থানে থাকতে চাই।

ব্যবস্থাপনা পরিষদ

জনাব কেডি সরকারি দেবেন্দ্র কলেজ থেকে তার ডিগ্রি সম্পন্ন করেছেন। । তিনি তার ব্যবসা শুরু করেন তার জীবনের খুব প্রথম দিকেই। ফিড শিল্পে তিনি একজন অনুকরণীয় ব্যক্তিত্ব। তিনি প্রায় ২৫ বছর পার করছেন ফিড উৎপাদন ব্যবসায় এবং ফিড সেক্টরে তার অনেক অভিজ্ঞতা আছে। তিনি তার স্ব-গবেষণা এবং ব্যবস্থাপনায় ফিড উৎপাদনে এবং বিক্রয়-বিপণনে ব্যাপক জ্ঞান সংগ্রহ করেছেন । মি. কেডি ব্যক্তিগত ও পেশা জীবনে গুণগত মান রক্ষায় সবসময়ই দৃঢ় প্রতিজ্ঞ। তিনি একজন ক্রমাগত আশাবাদী ব্যক্তি যতক্ষণ না সফল হন। মিঃ কেডি একজন মানবিক ব্যবসায়ী যিনি সর্বদা চেষ্টা করেন অসহায় মানুষের পাশে দাড়াতে। অসম্ভবকে সম্ভব করার জন্য তিনি সবসময় একজন দূরদর্শী মানুষ। তিনি এই কোম্পানীর শীর্ষ পদকে চেয়ারম্যান হিসাবে অলঙ্কৃত করেছেন। পিউর পুস্টি এগ্রো ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড পরিবার সব সময় বিশ্বাস করে তার দূরদর্শী শক্তির সাহায্যে মনে উঁকি দেওয়া সমস্ত স্বপ্ন শীঘ্রই সত্য হবে ।

জনাব কাজী দেলোয়ার কেডি চেয়ারম্যান

নাসিমা কেডি জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ডিগ্রী সম্পন্ন করেন। তিনি বিজনেজ সাপোর্টিং টিমের সাথে সরাসরি সম্পৃক্ত এবং একজন বিনিয়োগকারীও। তিনি পিওর পুস্টি এগ্রো ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক। তিনি এই কোম্পানির একজন প্রভাবশালী সৃজনশীল সিদ্ধান্ত প্রণেতা। মিসেসে কেডি অসহায় সম্প্রদায়ের প্রতি দয়ালু ব্যক্তিত্ব এবং তিনি তাদের জন্য একটি আশ্রয় ছাঁয়া হয়ে কাজ করতে চেষ্টা করেন। তাঁর আত্মত্যাগের পরিধি প্রতিশ্রুতিশীল এবং নিখুঁত। তাঁর আত্মত্যাগের পরিধি প্রতিশ্রুতিশীল এবং নিখুঁত। আমরা বিশ্বাস করি তিনি কোম্পানির একজন অপরিহার্য ব্যক্তিত্ব।

নাসিমা কেডি ব্যবস্থাপনা পরিচালক

জনাব রনি রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতকোত্তর ডিগ্রি এবং স্ট্যামফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয় থেকে এমবিএ করেছেন। তিনি Acme ল্যাবরেটরিতে টেরিটরি বিক্রয় ম্যানেজার হিসাবে তার ক্যারিয়ার শুরু করেছিলেন। তারপর থেকে, তাকে আর কখনই পিছনে ফিরে তাকাতে হয়নি। ইতিমধ্যে তিনি বিভিন্ন জাতীয় ও বহুজাতিক কোম্পানিতে বিভিন্ন ভূমিকা পালন করেছেন। তিনি সময় সময় একটি নেতৃস্থানীয় অবস্থানে ছিলেন। তিনি একজন প্রমাণিত দল নেতা এবং অনেক নতুন বাজার সৃষ্টিকর্তা । তার সমৃদ্ধ ক্যারিয়ার ইতিহাসের মধ্যে উল্লেখযোগ্য ভূমিকা হল প্রাণ-আরএফএল গ্রুপের ডিএসএম, জাতীয় স্বদেশ বিডির সেলস ম্যানেজার, দেশবন্ধু গ্রুপের ডিজিএম, লাংলিয়াছড়া চা রাজ্যের ডিজিএম । তিনি একজন নতুন বিক্রয় নীতি এবং প্রশাসনিক উপায়ের চিন্তাবিদ। এখন তিনি জেনারেল ম্যানেজার (অপারেশন) হিসেবে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করছেন এই কোম্পানিতে। পিউর পুস্টি এগ্রো ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড মিঃ রনির প্রতিভাবান নেতৃত্বে কোম্পানীর পরিকল্পিত মিশন এবং দৃষ্টিভঙ্গি অর্জন পর্যন্ত এগিয়ে যাওয়ার স্বপ্ন দেখে ।

জনাব আমীর ওয়ারেস রনি মহাব্যবস্থাপক

জনাব সুমন রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় থেকে রাষ্ট্রবিজ্ঞানে স্নাতকোত্তর ডিগ্রি লাভ করেন। তিনি তার সেলস পেশার শুরুতেই যোগদান করেন আবুল খায়ের গ্রুপে টেরিটরি সেলস অফিসার হিসেবে। তারপর, তার সেলস্ ক্যারিয়ারের পথ দ্রুত সামনে এগিয়ে গেছে। তিনি কাজ করেছেন কোহিনূর কেমিক্যাল, ট্রান্সশন বাংলাদেশ লিমিটেড এর হয়ে। তিনি পায়রা কনজ্যুমারস লিমিটেডের একজন বিক্রয় ব্যবস্থাপক ছিলেন। সর্বশেষ তিনি একজন সিনিয়র বিক্রয় ব্যবস্থাপক হিসেবে সিনথিয়া গ্রুপে কাজ করেন। বর্তমানে মি. সুমন পিওর পুষ্টি এগ্রো ইন্ডাস্ট্রসি লি: এ ন্যাশনাল সেলস ম্যানেজার হিসেবে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করছেন। এই কোম্পানীটি তাঁর স্বপ্নদর্শী কর্মকৌশল ও ফলপ্রসু নেতৃত্বে ব্যবসায়িক এজেন্ডার সকল পরিস্রাবিত পরিকল্পনা অর্জনে উন্মুখ হয়ে আছে।

এম এ গাফফার সুমন ন্যাশনাল সেলস্ ম্যানেজার

জনাব সালাম তেজগাঁও কলেজ থেকে এমবিএস ডিগ্রি লাভ করেন। তিনি জেনারেল ফার্মাসিউটিক্যালস লিমিটেড এ তার কর্মজীবন শুরু করেন । তারপর তিনি অভিজ্ঞতা ও সফলতার সাথে বর্ণিল কর্মজীবন পার করেছেন । তিনি বিভিন্ন সময়ে নিজেকে দক্ষ ম্যানেজার হিসেবে প্রমাণ করেছেন । তিনি প্রাণ-আরএফএল গ্রুপে কাজ করেন, নিউট্রিক গ্রুপ এর আঞ্চলিক ব্যবস্থাপক, আমানি গ্রুপের সেলস ম্যানেজার, সেলস ম্যানেজার হিসেবে লাংলিয়াছড়া টি স্টেট এ কাজ করেছেন। তিনি এখন একজন সেলস ম্যানেজার হিসেবে এই কোম্পানিতে আছেন। পিওর পুস্টি এগ্রো ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড তার দক্ষ নেতৃত্ব সুদীর্ঘ পথ অতিক্রমে প্রত্যাশী।

আবদুস সালাম বিক্রয় ব্যবস্থাপক

    আমাদের পণ্য এবং সেবা

    বর্তমানে আমরা কৃষকদের জন্য সব ধরনের ফিড উৎপাদন করছি। আমরা ব্রয়লার, লেয়ার সোনালী (স্টার্টার, গ্রোয়ার এবং ফিনিশার), গবাদি পশু এবং মাছ (ডুবন্ত এবং ভাসমান) এর খাদ্য প্রস্তুতকারক। আমরা নিশ্চিত করি, আমাদের অভিজ্ঞ উৎপাদন কারীদের দ্বারা সেরা মানের ফিড। সকল পণ্য দক্ষ কেমিস্ট  দ্বারা ল্যাবে পরীক্ষা করা হয় । আমরা সচেতনভাবে দেশের যে কোন প্রান্তে ২৪-৭২  ঘন্টার মধ্যে পণ্য সরবরাহ করতে সক্ষম, যদি দেশে কোন সংকট না থাকে। এছাড়াও, যেকোন জায়গায় যেকোন প্রশ্ন উঠলে আমরা আমাদের পরিষেবাগুলিকে পুনর্বিন্যাস করতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। 

    দায়িত্বশীলতা

    পিওর পুস্টি এগ্রো ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড এর কর্মীদের জন্য উদারনৈতিকে পেশাগত পদ্ধতি   রয়েছে । আমাদের একটি আকর্ষণীয় এবং বন্ধুত্বপূর্ণ অফিসিয়াল পরিবেশ আছে  দায়িত্ব বিবেচনায় সবার জন্য নিরাপত্তাই আমাদের মূল স্লোগান। এটিতে কর্মীর জন্য আপ টু ডেট নীতিমালা রয়েছে যেমন পিএফ, স্বাস্থ্য বীমা, ৩টা উৎসব বোনাস, প্রণোদনা, কোম্পানিতে টানা ৫বছর পার করা কর্মচারীদের জন্য হজ সম্পাদনের নীতি। আমাদের কর্মী ও ব্যবসায়িক অংশীদার যারা আমাদের ব্যবসায়িক পরিবারের সাথে জড়িত, তাদের সন্তানসন্ততির জন্য শিক্ষাবৃত্তির ব্যবস্থাও আমরা করে থাকি। যদি কোনো কর্মচারী এই কোম্পানিতে একটানা ১৫ বছর পার করেন, তাহলে তিনি কোম্পানির অর্থায়নে আবাসনের সুযোগ পেয়ে উপকৃত হবেন।

    আমাদের সামাজিক অঙ্গীকার

    আমরা আমাদের সমাজে প্রতি প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। তাই আমরা পথশিশু, প্রতিবন্ধী এবং সব ধরনের সুবিধাবঞ্চিত মানুষের জন্যও কাজ করি। আমরা সবার জন্য সমতায় বিশ্বাসী। এটা নিশ্চিত করার জন্য আমরা কাজ করছি।

    0
    পন্য
    0
    কর্মি
    0
    বছরের অভিজ্ঞতা
    0 M+
    টাকা বার্ষিক টার্নওভার

    আপনার কোন প্রশ্ন আছে ?
    থাকলে যোগাযোগ করতে পারেন